অনুবাদ কবিতা

পল চেলানের কবিতা

অর্ক চট্টোপাধ্যায়

জার্মান কবি পল চেলান (১৯২০-১৯৭০) ইওরোপীয় আধুনিকতাবাদী কবিদের মধ্যে তার শব্দশূন্য এবং শব্দশুষ্ক মিতভাষের জন্য স্মরণীয়। প্রথম দুটি অনুবাদ কবিতা ১৯৫৯ এর Sprachgitter থেকে নেওয়া আর পরের দুটি ১৯৭৬ এর Zeitgehoft কাব্যগ্রন্থ থেকে।


(১)
নীচে

গড়ান বাড়ির পথে, বিস্মৃতিপথে
চোখের দেরীর ভিতর
সমাজবদ্ধ কথা

বাড়ির পথে গড়ান, সিলেবলে দেয়া-নেয়া
দিনান্ধ ছক্কার পাশে জেগে ওঠার দীর্ঘতায়
খেলাধুলোর হাত উঠে আসে ।

আমার কথার যেটুকু বড্ড বেশি

তোমার নির্বাকের জামায় জমা
ছোট্ট ফটিকের দুপাশে
সেইটুকুই জমে ঢিপি।


(২)
ফুল

পাথরটা
পাথরটা হাওয়ায়, আমি পিছু নিলাম।
তোমার চোখ, পাথরটার মত অন্ধ।

আমরা ছিলাম
হাত,
আমরা অন্ধকার খালি করেছি ভেতর থেকে, খুঁজে পেয়েছি
গ্রীষ্ম-অতিক্রান্ত শব্দ: ফুল।

ফুল-- কোনো এক অন্ধের শব্দ
তোমার চোখ আর আমার:
ওরা চেয়ে থাকে
জলের দিকে।

বেড়ে ওঠা
হৃদ-প্রাচীরের ওপর আবার হৃদ-প্রাচীর
তার ওপর পাপড়ির যোগান।

এরকম আরেকটা শব্দ এলে হাতুড়িগুলো
খোলা মাঠের ওপর দুলে উঠবে।


(৩)
ট্রাম্পেটের অংশবিশেষ

উজ্জ্বল গহ্বরের
গভীরে
লন্ঠন উচ্চতায়
সময় গহর:

মুখ দিয়ে
শুনতে শুনতে
ভেতরে চলে যাও।


(৪)

রসিকতা করি আমার রাতের সাথে
যা কিছু ছিঁড়ে আলগা হয় এখানে
তার সব ধরে রাখি আমরা,

তোমার অন্ধকারও
ঢেলে দাও
আমার আধা-অধুরা
নাবিক চোখে

এও তো সমস্ত দিক থেকে
অমন কিছু শোনা,
প্রতিটা গ্রহণের
অকাট্য প্রতিধ্বনি।